ছাত্রলীগ ও বুয়েট ছাত্র আবরার হত্যাকান্ড:আমার কিছু কথা।

0
401

এক বাবার ৩ ছেলে ছিল,তাদের মধ্যে ছোট ছেলে খুবই সৎ ভদ্র।একদিন বাবার কাছে বিচার আসে তার সৎ ভদ্র ছেলেটি রাস্তায় দাড়িয়ে একটি মেয়ের সাথে কথা বলেছে আর তাই বাবা ছেলেকে রিতীমত পিটুনি দিচ্ছে।এদিকে ভদ্র ছেলে পিটুনি খেয়ে বাবাকে বলছে বাবা আমি শুধু একটা মেয়ের সাথে কথা বলেছি আর তাই আমাকে পিটাচ্ছ অথচ তোমার অন্য ছেলেরা তো মেয়েদের সাথে শুধু কথাই বলেনা মেয়েদেরকে ডিস্টার্ব ও করে। তখন বাবা তার ছেলেকে বলে তারা অভদ্র বেয়াদব তাদের জন্য আমি বড় কোন আশা করি না,তাদের নিয়ে আমি কোন স্বপ্নও দেখিনা অথচ তোকে নিয়ে আমার অনেক স্বপ্ন,তোকে অনেক বড় হতে হবে,তোকে অনেক সৎ হতে হবে,তোর অন্য ভাইগুলো খারাপ হয়ে গেলেও তোকে ভালো থাকতে হবে,তাদেরকে ভালো পথে আনার জন্য তোকে সাধ্যমত চেষ্টা করতে হবে,কেননা তোর মাধ্যমে আমি অনেক বড় কিছু পাওয়ার আশা করি, আর তুই যদি এখনই তাদের মত হয়ে যাস তাহলে আমার আশা, আমাার স্বপ্ন ভেঙ্গে চূরমার হয়ে যাবে।সবাই অসভ্র হলেও তোকে একাই সত্য ও ন্যায়ের পথে থাকতে হবে।তখন বাবার কাছে বিচারদাতা ব্যক্তিটিও উপস্থিত হয়ে বলে বাবা ছোট ছেলে তোমাকে সব সময় দেখি তুমি ন্যায়ের পথে থাক আর তাই ভাবলাম ছোটখাট ভুলের কারনে তুমি যেন নষ্ট না হয়ে যাও তাই তোমার বাবার কাছে বিচার দিয়েছি।তখন বাবার ছোট ছেলেটি বুঝতে পারে আসলে তাকে কোন অন্যায় মানায় না,তাকে কোন দূর্নামের মুখোমুখি হতে কেউ দেখতে চায় না।সুতরাং আমি বলতে চাই আজকের ছাত্রলীগ বাবার স্বপ্ন পূরনের সেই ছোট ছেলে ।আজকের ছাত্রলীগ শিবির কি করছে আর ছাত্রদল কি করছে তা দেখার জন্য সৃষ্টি হয় নাই। আজকের ছাত্রলীগই রাষ্ট্রভাষা বাংলা চাই আন্দোলনে রাজপথ কাপিয়েছিল,আজকের এই ছাত্রলীগই বিভিন্ন সময় শিক্ষার অধিকার আদায়ের আন্দোলন, বাঙালির স্বায়ত্তশাসন প্রতিষ্ঠা, গণঅভ্যুত্থান, স্বাধীনতা ও স্বাধিকার আন্দোলনসহ সৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের মাধ্যমে দেশকে দু:শাসন থেকে মুক্তি দিয়েছিল।আজকের এই ছাত্রলীগই কিন্তু হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের হাতে গড়া।আজকের এই ছাত্রলীগকে নিয়ে পিতা মুজিবের অনেক স্বপ্ন ,আজকের এই ছাত্রলীগ কখনো মানুষ হত্যায় জড়িত হবে পিতা মুজিবের জন্য তা হবে অকল্পনীয়।আজ আবরার হত্যাকান্ডে ছাত্রলীগের জড়িত হওয়া কোনভাবেই মেনে নেওয়া যায় না।তবে অপরাধীর নাম শুধু অপরাধীই এর বাহিরে তার কোন পরিচয় থাকতে পারেনা।কতিপয় অমানুষদের কারনে কোন দল বা সংগঠনকে ডালাওভাবে দোষারোপ করাটাও উচিত হবে না ,সেই সাথে আবরার হত্যাকান্ডে জড়িত সে যেই হোক তার সর্বেোচ্চ শাস্তির দাবী জানাচ্ছি।

প্রিয় ছাত্রলীগ ভাইয়েরা আমার অনুরোধ থাকবে যার গলায় ছাত্রলীগের মালা পড়িয়েছ সে কখনো অন্যায়ের সাথে জড়িত হয়োনা,তোমরা নিজে অন্যায় করোনা এবং কাউকে অন্যায় করতেও দিয় না, তোমাদের কাছে বাংলা ও বাঙ্গালীরা অনেক কিছু আশা করে,তোমরা পিতা মুজিবের আদর্শকে শক্ত করে আকড়ে ধর।নিশ্চই বাংলার বুকে সেই ৫২ এর ছাত্রলীগ,সেই ৭১ এর ছাত্রলীগকে মানুষ খুজে পাবে।
—————————-
আজাহারুল ইসলাম আজাহার
সাংবাদিক,দৈনিক পল্লী সংবাদ।

পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

আপনার মতামত কমেন্টস করুন