শিরোনাম
ত্রিশালে আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত ত্রিশালে আনন্দঘন পরিবেশে মেয়র আনিছের ৫৩ তম জন্মদিবস পালন শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন দৈনিক পল্লী সংবাদ পত্রিকার সম্পাদক আজাহার ত্রিশাল উপজেলা প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত জাককানইবি উইমেন লিডার্স প্রকল্পের নতুন কমিটি ঘোষণা;সভাপতি ইরা সম্পাদক আঁখি ময়মনসিংহ সম্মিলিত প্রেসক্লাবের কমিটি গঠন সভাপতি রবি – সম্পাদক সফিক ত্রিশালে ইউপি নির্বাচনে আ’লীগ প্রার্থীদের জয়ের মূখ্য ভূমিকা ছিল মেয়র আনিছের কানিহারীতে ১নং ওয়ার্ড মেম্বার পদে যুবসমাজের পছন্দের প্রার্থী রাশেদুল ইসলাম রাশেদ বদলগাছীতে ধান ক্ষেতে অজ্ঞাত ব্যক্তির ‘পা’ উদ্ধার করেছে পুলিশ উল্লাপাড়ায় গেম খেলতে বাধা দেয়ায় এসএসসি পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা
মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ০১:২৮ অপরাহ্ন

ত্রিশালে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা দিবস পালন করলেন ছাত্রলীগ নেতা মামুন

রিপোটারের নাম / ৩৩৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : রবিবার, ২২ আগস্ট, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টারঃ
ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল মামুন ২১আগস্ট গ্রেনেড হামলার দিসব পালন করেছেন।

শনিবার (২১আগস্ট) সন্ধ্যায় উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল মানুনের নেতৃত্বে কয়েকশত ছাত্রলীগ কর্মী সমাবেত হলে পৌরসভা কার্যালয় বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতির সামনে ২১আগস্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে শোক প্রকাশ করে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন ও গ্রেনেড হামলায় জড়িত সকল দোষী ব্যক্তিদের বিচারের রায় কার্যকরের জোর দাবী জানান।

এই ছাত্রলীগ নেতার উদ্যোগে কর্মীসূচী গ্রেনেড হামলা দিবসে মোমবাতি প্রজ্জলন উদ্বোধন করেন, ত্রিশাল পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব এবিএম আনিছুজ্জামান আনিছ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন,ছাত্রলীগ নেতা, প্রকৌশলী ফরহাদ, ছাত্রনেতা রোহান, মাহফুজ,জিহাদুল ইসলাম জিহাদ,রাতুল, কাউসার, রবিউল ও পলাশ। এ ছাড়াও উপজেলা শ্রমিকলীগ নেতা মোহাম্মদ আলী ও শ্রমিক ইউনিয়ন নেতা রুবেল সরকার মোমবাতি প্রজ্জলনে সাথে ছিলেন।

উল্লেখ্য-২০০৪ সালে ২১ আগস্ট ঢাকার বঙ্গবন্ধু এভিনিউ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের জনসভায় বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে বিশেষ একটি গোষ্ঠী দেশে ও দেশের বাহিরে ষড়যন্ত্র করে যুদ্ধকালীন সময়ে প্রতিপক্ষকে ধ্বংস করার জন্য যে গ্রেনেড ছোড়া হয়। সেই দিন এই গ্রেনেড গুলো আওয়ামীলীগকে চিরতরে ধ্বংস করার জন্য একের পর এক সেই যুদ্ধ গ্রেনেড নিক্ষেপ করে। আওয়ামীলীগ নেত্রী আইবি রহমান এবং অন্যান্য ২৪জন নেতা কর্মীকে হত্যা করেন। এই হামলায় শেখ হাসিনাসহ ৫ শতাধিকের বেশি নেতা কর্মী গুরুতর আহত হয়েছিলেন। মহুতেই সারাবিশ্বে প্রতিবাদ ও নিন্দার ঝড় উঠে।
১৭বছর আগে এই দিনটি আওয়ামীলীগের উপর বর্বরোচিত হামলা করায় আওয়ামীলীগ দিবসটি কালো দিবস হিসেবে পালন করে এর অংশ হিসেবে ত্রিশালেও যথাযোগ্য মর্যাদায় দিবসটি পালন করেছেন


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ