শিরোনাম
ত্রিশালে আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত ত্রিশালে আনন্দঘন পরিবেশে মেয়র আনিছের ৫৩ তম জন্মদিবস পালন শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন দৈনিক পল্লী সংবাদ পত্রিকার সম্পাদক আজাহার ত্রিশাল উপজেলা প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত জাককানইবি উইমেন লিডার্স প্রকল্পের নতুন কমিটি ঘোষণা;সভাপতি ইরা সম্পাদক আঁখি ময়মনসিংহ সম্মিলিত প্রেসক্লাবের কমিটি গঠন সভাপতি রবি – সম্পাদক সফিক ত্রিশালে ইউপি নির্বাচনে আ’লীগ প্রার্থীদের জয়ের মূখ্য ভূমিকা ছিল মেয়র আনিছের কানিহারীতে ১নং ওয়ার্ড মেম্বার পদে যুবসমাজের পছন্দের প্রার্থী রাশেদুল ইসলাম রাশেদ বদলগাছীতে ধান ক্ষেতে অজ্ঞাত ব্যক্তির ‘পা’ উদ্ধার করেছে পুলিশ উল্লাপাড়ায় গেম খেলতে বাধা দেয়ায় এসএসসি পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা
মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ০২:০২ অপরাহ্ন

নাগরিকত্বের কাগজ নেই ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর

রিপোটারের নাম / ৯৮১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : রবিবার, ১ মার্চ, ২০২০

নাগরিকত্ব আইন ও রাষ্ট্রীয় নাগরিক পুঞ্জী নিয়ে ইতিমধ্যেই ভারতের রাজধানী দিল্লীতে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার মত নেতিবাচক টিকা লেপটেছে !
বিগত কয়েক মাস ধরে এই দুই আইন বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ চলছে। নাগরিকত্ব আইন নিয়ে দিল্লিতে ভয়াবহ সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত ৪৩ জন নিহত হয়েছে।
উক্ত আইনসমূহ নিয়ে এত জলঘোলর মধ্যেই চাউর বার্তা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নাগরিকত্বের কোনও কাগজপত্র নেই, জন্মসূত্রেই তিনি ভারতীয়।
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নাগরিকত্বের কোনও কাগজপত্র নেই, জন্মসূত্রেই তিনি ভারতীয়। তথ্যের অধিকার আইনে (আরটিআই) মোদীর নাগরিকত্ব নিয়ে এক ব্যক্তির প্রশ্নের জবাবে এমনই জানাল প্রধানমন্ত্রীর দফতর (পিএমও)। চলতি বছরের ১৭ জানুয়ারি শুভঙ্কর সরকার নামে এক ব্যক্তি আরটিআই-এর মাধ্যমে জানতে চান প্রধানমন্ত্রীর নাগরিকত্বের কাগজপত্র রয়েছে কি না। তারই উত্তরে পিএমও-র সচিব প্রবীণ কুমার জানান, ১৯৫৫ সালের নাগরিকত্ব আইনের ৩ ধারা অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রী জন্মসূত্রেই ভারতীয়।
দেশজুড়ে বিক্ষোভের মধ্যেই এই তথ্য চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে রাজনৈতিক মহলে। বিশেষত, অসমে জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) তৈরির পরে বহু মানুষ নাগরিকত্ব প্রমাণে ব্যর্থ হয়ে ‘ডিটেনশন’ শিবিরে ঠাঁই পেয়েছেন। প্রশ্ন উঠেছে, এর পরে নাগরিকত্বের নথি চাওয়া হলে আমজনতাও যদি জন্মসূত্রে নাগরিকত্বের দাবি তোলে, তা কি গ্রাহ্য হবে? স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক এর আগে একাধিক বার জানিয়েছে, ২০১১ ও ২০১৫ সালের জাতীয় জনগণনা পঞ্জি প্রক্রিয়ার পরে দেওয়া পরিচয়পত্র যাঁদের কাছে নেই তাঁরা নাগরিক নন। দেশের মানুষের বড় অংশের কাছেই সেই পরিচয়পত্র নেই। বিরোধীরা প্রশ্ন তোলেন, তবে বিজেপি কাদের ভোটে জিতল? তথ্যঃ অনলাইন/আনন্দবাজার।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ