পত্নীতলা উপজেলা ছাত্রলীগের নেতৃত্বে বির্তকিত, অনুপ্রবেশকারী ও বিএনপি নেতার ছেলে

0
1361

প্রেসবিজ্ঞপ্তি:
দীর্ঘদিন পর নওগাঁ জেলার পত্নীতলা উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার নজিপুর কলেজ মাঠে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। উদ্বোধক ছিলেন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাব্বির আহমেদ রিজভী। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন,সাবেক হুইপ শহিদুজ্জামান সরকার। প্রধান বক্তা ছিলেন, জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক আমানুজ্জামান সিউল। বিশেষ অতিথি ছিলেন, ছলিম উদ্দীন তরফদার এমপি, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি মাহমুদুল হাসান, উপ তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আকতার হোসেন, উপ-সাংস্কৃতিক সম্পাদক ফাইম ইসলাম মিলন। বদিউজ্জামান বিলাশ’কে সভাপতি ও তাসরিফ হোসেন সম্পদ’কে সাধারন সম্পাদক করে কমিটি ঘোষনা করা হয়। এ কমিটি ঘোষণা হওয়ার পর হতাশা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ছাত্রলীগের ত্যাগী ও তৃণমূলের নেতাকর্মীরা। তাদের দাবি, “ এ কমিটির সভাপতি বদিউজ্জামান বিলাশ ছাত্রদলের কর্মী। সে বিতর্কিত ও অনুপ্রবেশকারী এবং সাধারন সম্পাদক তাসরিফ হোসেন সম্পদ বিএনপি নেতা সরোয়ার হোসেনের ছেলে। স্বজনপ্রীতি ও অর্থ বাণিজ্যের মাধ্যমে পত্নীতলা ছাত্রলীগের নেতৃত্বে পেয়েছেন বিলাশ ও সম্পদ। ফলে ত্যাগী ও দক্ষ নেতাদের নাম তালিকা থেকে বাদ পড়ায় পুরো উপজেলায় ক্ষোভে ফুঁসে ওঠেছে তৃণমূলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা।
তৃণমূলের নেতাকর্মীরা জানান, স্থানীয় এক এমপি ও জেলা ছাত্রলীগের সভাপতির যোগসাজোশে মোটা অর্থের বিনিময়ে বির্তকিত ও অনুপ্রবেশকারী, ছাত্রদল কর্মী বিলাশকে সভাপতি ও বিএনপি নেতা সরোয়ার হোসেনের ছেলে সম্পদ’কে সাধারন সম্পাদক করা হয়েছে। এছাড়াও তারা মাদকাসক্ত বলে জানিয়েছেন অনেকেই।
এ ব্যাপারে স্থানীয় উপজেলা আওয়াামীলীগের নেতারা ক্ষোভ ব্যক্ত করে বলেন-“বিরোধী দলে থাকাকালীন যাদের অত্যাচারে ঘরে থাকতে পারি নি, তাদের সন্তানেরা আজ বঙ্গবন্ধুর নিজ হাতে গড়া সংগঠনের পদ-পদবী দখল করে নিচ্ছে। এ ধরনের হঠকারী সিদ্ধান্তে বিরূপ প্রভাব পড়ার আশঙ্কা করছি আমরা। ”
অন্যদিকে ছাত্রলীগের অনেক কর্মী বলেন, অবিলম্বে এ কমিটি বাতিল করে প্রকৃত ছাত্রলীগের কর্মীদের দিয়ে কমিটি না হলে আমরা কঠোর কর্মসূচি দিবো।

পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

আপনার মতামত কমেন্টস করুন