শিরোনাম
ত্রিশাল ইউনিয়নে আ’লীগের দলীয় চেয়ারম্যান হতে হলে, দরকার জাকির হোসেন সরকারের ত্রিশালে বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করলেন মেয়র আনিছ ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আহাম্মদ আলী বুলুর নির্বাচনী প্রচারনা ত্রিশালে শ্রমিক লীগের ৫২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন শারদীয় দুর্গা পূজার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কানিহারী ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ ফরহাদ হোসেন অনিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল বন্ধের নির্দেশ, হাইকোর্টে আপিল করলেন বনেক ত্রিশা‌লে বাংলা‌দে‌শের খবর প‌ত্রিকার প্রতিষ্ঠা বা‌র্ষিকী পা‌লিত ত্রিশালে রাজনৈতিক ভাবে হেয় করতে মেয়র আনিছের বিরুদ্ধে চক্রান্ত ত্রিশালের মঠবাড়ি ফুটবল ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত ত্রিশালে বিরল রোগাক্রান্ত সালমানের পরিবারকে ঘর প্রদান
শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৫৫ অপরাহ্ন

রাজনীতিক পরিবারে জন্ম জেলা ছাত্রলীগ নেতা পারভেজ সরকারের

রিপোটারের নাম / ৮৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বুধবার, ৪ আগস্ট, ২০২১

ফকরুদ্দীন আহমেদ//

ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলায় আদিকাল থেকে করে আসা দেশের সুনামধন্য রাজনীতিবিদ ও গুণিজন মরহুম আবুল কালাম শাসসুদ্দিন, আবুল মুন্সুর, ময়জদ্দিন মোক্তার, ছালাম তালুকদার, অধ্যক্ষ আব্দুর রশিদ, জয়মত আলী মন্ডল, আবুল হোসেন চেয়ারম্যান, রুহুল আমিন বিএসসি, ফজল আহমেদ, আব্দুল মজিদ স্যানিটারি, আব্দুল হামিদ চেয়ারম্যান, ময়জদ্দিন মেম্বার, আব্দুল কাদির মাষ্টার ও অলি মন্ডলসহ প্রবীণ নেতারা দুনিয়া ছেড়ে চলে গেছেন কিন্তু সময়ের ব্যবধানে রাজনৈতিক এপিট ওপিট হয়েছে। রাজনীতি থেকে ছিটকে পড়েছে এদের পরিবার। এর মাঝে দু’একজন রাজনীতির হাল ধরতে চাইলেও তাদের ভাগ্য সাপোর্ট পাচ্ছেনা এ প্রজন্মের কাছে। প্রকৃত ইতিহাস খোঁজলে দেখা যায় শেরে-বাংলা ফজলুল হক, হক ভাসানী শেখ মুজিবুর রহমানের আমলে যারা এই ত্রিশালের নেতৃত্ব দিতো তাদের সন্তানেরা তাদের পৃর্ব পূরুষদের আদর্শ ধরতে গেলেই কোনঠাসা হয়ে পড়ে ঘরে ফিড়ছেন। খুব কম এই প্রবীণ রাজনীতিবিদের পরিবারের সন্তানেরা আজ দলে যুক্ত আছে। তার মাঝে পারভেজ হাসান সরকার একজন। যিনি সদ্য
ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়েছেন।
পারভেজ হাসান সরকার ত্রিশাল উপজেলার মঠবাড়ি ইউনিয়নের বাদামিয়া অঞ্চলের আজিম সরকার বাড়ির সন্তান। তার বড় দাদা মরহুম আজিম উদ্দিন সরকার বৃটিশ পিরিয়ডে ইউনিয়ন পন্চায়েত সদস্য (১৯০৪ সালে) অতপর একাধারে ২৪ বছর মঠবাড়ি ইউনিয়নের প্রেসিডেন্ট ছিলেন। তার দাদা মরহুম ময়েজ উদ্দিন সরকার ১৯৪৯ সাল থেকে আওয়ামী মুসলিম লীগ অতপর মৃত্যুঅবধি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতৃত্ব দিয়েছেন। মরহুম ময়েজউদ্দিন সরকার মঠবাড়ি ইউনিয়নের ভাইস চেয়ারম্যান ছিলেন। পারভেজ হাসান সরকারের দাদার ফুফাত ভাই মরহুম ময়েজউদ্দিন আহন্মদ (ময়েজউদ্দিন মোক্তার) বৃহত্তর ময়মনসিংহে আওয়ামীলীগের নেতৃত্ব দিয়েছেন দীর্ঘ সময়। উনি জাতির পিতার অতি ঘনিষ্ঠ বন্ধু ও সহযোদ্ধা ছিলেন এবং ১৯৫৪ সালে পূর্বপাকিস্তান প্রাদেশিক সরকারের সদস্য (এমপি) ছিলেন। পারভেজ হাসানের দাদী খুরশিদা ময়েজউদ্দিন ১৯৭৩ সালে এমপি ছিলেন। আওয়ামী আদর্শে লালিত পালিত পারভেজ হাসান নম্র ভদ্র ছেলে হিসাবে সবার কাছে পরিচিত। তার বাবা ত্রিশাল বিদ্যুৎ অফিসে কর্মরত, মা গৃহিণী । পারভেজ হাসানের বড় ভাই (ফুফাতো ভাই) শাহ আহসান হাবীব বাবু মানবিক ও সামাজিক কর্মকান্ডে নিয়োজিত। এই পারভেজ হাসান সরকার দলের দায়িত্ব পাওয়ায় ত্রিশালে তার পরিবারে ইতিহাস জাগ্রত করেছে। ত্রিশালের মানুষ তার পরিবারের গুণীব্যক্তিদের আবারো নতুন করে চিনতে শুরু করবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ